প্রেমিক সালমান সম্পর্কে ঐশ্বরিয়ার বিস্ফোরক বক্তব্য

শাহরুখ খান ও ঐশ্বরিয়া রায় অভিনীত ‘দেবদাস’ দর্শকদের হাজারো প্রশংসা কুড়িয়েছিল। এছাড়া শাহরুখ- ঐশ্বরিয়ার ‘জোশ’-কেও অন্যতম আইকনিক সিনেমা হিসেবেই ধরা হয়।

২০০০ সালে ‘জোশ’ বক্স অফিসে দারুণ ব্যবসাও করে। কিন্তু, শাহরুখ নন, ‘জোশ’-এর জন্য পরিচালকের প্রথম পছন্দ কে ছিলেন জানেন?

এক সাক্ষাৎকারে ঐশ্বরিয়া বলেন, ‘জোশ’-এর জন্য পরিচালক মনসুর খানের প্রথম পছন্দ ছিলেন সালমান খান। ‘জোশ’-এ সালমান খান-কে তার ভাইয়ের চরিত্রে দেখা যাওয়ার একটা সম্ভাবনা তৈরি হয়।

শুধু তাই নয়, আমির খান-কেও এই সিনেমায় কাস্ট করার কথা ছিল। চন্দ্রচূড় সিং-এর পরিবর্তেই আমিরকে এই সিনেমায় কাস্ট করার কথা ভেবেছিলেন পরিচালক। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত, সালমান কিংবা আমির নন, ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে ওই সিনেমায় দেখা যায় শাহরুখ এবং চন্দ্রচূড়-কে।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পরিচালকের ভাবনা চিন্তাও পাল্টে যায়। আর সেই কারণেই পরিবর্তন আনা হয় কাস্টিংয়ে।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, সঞ্জয় লীলা বানশালির ‘হাম দিল দে চুকে সনম’-এ সালমান খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেন ঐশ্বরিয়া রায়। কিন্তু, ওই সিনেমার পর থেকেই সালমান-ঐশ্বরিয়ার সম্পর্কে চিড় ধরতে শুরু করে।

২০০০ সালে সালমান খানের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায় ঐশ্বরিয়ার। যা নিয়ে বলিউডে কম জল্পনা হয়নি। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত সংবাদমাধ্যম ডেকে সালমানের সঙ্গে বিচ্ছেদের কথা প্রকাশ্যে জানিয়ে দেন ঐশ্বরিয়া।

ঐশ্বরিয়া জানান, সালমান খানের সঙ্গে তার সম্পর্ক জীবনের সবচেয়ে বড় ভুল। এই ভুল দ্বিতীয়বার তিনি আর করতে চান না। শুধু তাই নয়, সম্পর্কে থাকাকালীন সালমান যেভাবে তার গায়ে হাত তুলেছেন, মারধর করেছেন, তা কোনওদিন ভুলতে পারবেন না তিনি। এমনকী, সালমানের মারের দাগ তার পিঠ থেকে উঠে যায়নি বলেও এক সময় মন্তব্য করেন এই সুন্দরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

ঈদের জামাত নির্বিঘ্ন করতে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা

জাতীয় ঈদগাহে মুসল্লিরা যেন নির্বিঘ্নে ঈদুল আজহার নামাজ পড়তে পারেন, সেজন্য ঢাকা মহানগর পুলি…